আমির খান কি তৃতীয় বিয়ে করবেন?

এবার শোনা যাচ্ছে, তৃতীয় বিয়ের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন আমির খান। প্রসঙ্গটি তুলেছেন বলিউডের আরেক জনপ্রিয় তারকা সালমান খান। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেছিলেন, ‘চেষ্টা করবেন আমির যাতে তৃতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে না বসেন!’ আমিরের গতিবিধি দেখে সালমান খান তেমনটাই ইঙ্গিত করেছেন।
১৯৮৬ সালের ১৮ এপ্রিল রীনা দত্তকে বিয়ে করেছিলেন বলিউডের জনপ্রিয় তারকা আমির খান। তাঁদের দুই সন্তান, ছেলে জুনায়েদ আর মেয়ে ইরা। চলচ্চিত্রের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন রীনা দত্ত। ২০০২ সালের ডিসেম্বরে তাঁদের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। এরপর ২০০৫ সালের ২৮ ডিসেম্বর চিত্রপরিচালক কিরণ রাওকে বিয়ে করেন আমির খান। এই দম্পতির ছেলে আজাদ। এবার শোনা যাচ্ছে, তৃতীয় বিয়ের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন আমির খান। প্রসঙ্গটি তুলেছেন বলিউডের আরেক জনপ্রিয় তারকা সালমান খান। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেছিলেন, চেষ্টা করবেন আমির যাতে তৃতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে না বসেন! আমিরের গতিবিধি দেখে সালমান খান তেমনটাই ইঙ্গিত করেছেন।

ফাতিমা সানা শেখ বলিউডে এখন পরিচিত মুখ। হিন্দি ছবিতে অভিনয় করছেন ১৯৯৭ সাল থেকে—‘ইশক’, ‘চাচি ৪২০’, ‘বড়ে দিলওয়ালা’, ‘ওয়ান টু কা ফোর’, ‘তাহান’, ‘বিট্টু বস’, ‘আকাশ বাণী’। কাজ করেছেন তামিল ও তেলেগু ছবিতেও। তবে সামনের সারিতে আসার সুযোগ পান ‘দঙ্গল’ ছবিতে কাজ করে। এই ছবিতে তাঁর চরিত্রের নাম ছিল ‘গীতা ফোগট’। শোনা যায়, এই ছবিতে কাজ করতে গিয়ে আমির খান আর ফাতিমা সানা শেখের ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয়েছে।

‘দঙ্গল’ ছবির কাজ শেষ হওয়ার পর ফাতিমা সানা শেখকে নিজের প্রোডাকশন হাউসে সহকারী পরিচালকের কাজ দেন আমির খান। এ সময় অনেকেই মনে করেন, এই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার কারণে আমির খান আর ফাতিমা সানা শেখ কিছুটা সময় কাছাকাছি থাকার সুযোগ পাচ্ছেন। ‘দঙ্গল’ ছবির আরেক নায়িকা সানিয়া মালহোত্রা। ছবিতে তিনি ছিলেন ‘ববিতা ফোগট’। তাঁকেও একই প্রতিষ্ঠানে চাকরি দিয়েছেন। কাজ ছাড়াও আমির খান বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ফাতিমা সানা শেখ ও সানিয়া মালহোত্রাকে সঙ্গে নিয়ে যান। তখন শোনা যায়, আমির খান আসলে ফাতিমাকেই সঙ্গে নিয়ে যেতে চান। সানিয়াকে নিয়ে যান, যাতে এ ব্যাপারে কেউ কোনো সন্দেহ করতে না পারে।

‘থাগস অব হিন্দোস্থান’ ছবিতে ফাতিমা সানা শেখের সুযোগ পাওয়ার কোনো কারণ ছিল না। তখন বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম থেকে জানা যায়, আমির খানের অনুরোধেই ছবিতে তাঁকে নেওয়া হয়েছে। যেহেতু এই ছবিতে অমিতাভ বচ্চন ও আমির খান দুজনই আছেন, তার ওপর ছবিটা যশ রাজ ফিল্মসের। সব মিলিয়ে ফাতিমা সানা শেখের নিজের ক্যারিয়ার গড়ার জন্য এটা ছিল বিশাল সুযোগ। শোনা যায়, মুম্বাইয়ে যে জিমে আমির খান নিয়মিত যান, সেখানেই ব্যায়াম করেন ফাতিমা সানা শেখ। আমির খান নিজেই নাকি তাঁকে এই ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। আরও শোনা যায়, ‘দঙ্গল’ ছবির পর নিজের ওজন কমানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্রে যান আমির খান। তখন তাঁর সঙ্গে ছিলেন ফাতিমা সানা শেখও।

এই সব কিছু নিয়ে যখন সংবাদমাধ্যমে নানা চটকদার খবর পরিবেশন করা হচ্ছে, তখন স্বামীর পাশে এসে দাঁড়ান কিরণ রাও। তিনি সংবাদমাধ্যমকে জানান, ‘থাগস অব হিন্দোস্থান’ ছবিতে ফাতিমা সানা শেখ সুযোগ পেয়েছেন কারণ প্রযোজক আদিত্য চোপড়া আর পরিচালক বিজয় কৃষ্ণ আচার্য তাঁকে চেয়েছেন। আর যা শোনা যাচ্ছে, এই সবই গুজব। তা নিয়ে সন্দেহ করার কোনো কারণ নেই। আর নিজেদের দাম্পত্য সম্পর্কের ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘আমাদের সম্পর্ক যথেষ্ট মজবুত। তা এতটাই মজবুত যে কোনো ঝড় তা দুর্বল করে দিতে পারবে না।’

স্বামীর পরিচ্ছন্ন ইমেজ রক্ষার ব্যাপারে কিরণ রাওয়ের চেষ্টা অনেকের কাছেই হাস্যকর মনে হয়েছে। কারণ তাঁদের সামনে অনেক উদাহরণ রয়েছে। রীনা দত্তের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটিয়ে কিরণ রাওকে বিয়ে করেছিলেন আমির খান। ‘ডর’ ছবিতে অভিনয় করেন শাহরুখ খান। কিন্তু এই ছবিতে আমির খানের অভিনয় করার কথা ছিল। তাঁর বিপরীতে ছিলেন দিব্যা ভারতী। ওই সময় জুহি চাওলার সঙ্গে আমির খানের প্রেমের কথা ছিল সবার মুখে মুখে। তখন যশ রাজ ফিল্মসকে চাপ দিয়ে দিব্যা ভারতীর বদলে ‘ডর’ ছবিতে জুহি চাওলাকে নেওয়ার ব্যবস্থা করেন তিনি। পরে আমির খানকেই বাদ দেওয়া হয় ছবি থেকে। ‘গুলাম’ ছবির কাজের সময় ব্রিটিশ সাংবাদিক জেসিকা হাইনের সঙ্গেও আমির খানের প্রেমের কথা শোনা যায়। জেসিকা হাইন তখন দাবি করেছিলেন, তাঁর সন্তানের বাবা আমির। যদিও পরে সেই দাবি আমির খান উড়িয়ে দেন।

কিরণ রাওয়ের চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। এবার বাধ্য হয়ে মুখ খুলেছেন যাকে নিয়ে এত রটনা, সেই ফাতিমা সানা শেখ। তিনি বলেন, ‘যখন এসব নিয়ে পত্রিকায় লেখালেখি হয়, মা এসে আমাকে জিজ্ঞেস করেন, এসব কী? ব্যাপারটি আমার এবং আমার পরিবারের জন্য অস্বস্তিকর।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমির খান আমার কাছে খুব স্পেশাল একজন। এসব গুঞ্জন তাতে কোনো প্রভাব ফেলবে না। একসময় এসব মিথ্যার প্রতিবাদ করতে ইচ্ছে হতো, এখন এসব কিছুকে আর পাত্তা দিই না।’

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password