বৃদ্ধ মাকে রাস্তায় ফেলে পেটানোর সময় ছেলে আটক

ফরিদপুর শহরের আলীপুর এলাকায় রাস্তায় ফেলে বৃদ্ধ মাকে পেটানোর সময় ছেলেকে আটক করেছে পুলিশ। সত্তর বছরের বেশি বয়স জহুরুন নেছার। জমিসংক্রান্ত বিরোধের কারণে ওই বৃদ্ধ মাকে রাস্তার ওপর ফেলে মারধর করছিলেন তাঁর ছেলে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই ছেলেকে আটক করে।

আজ শুক্রবার সকালে ফরিদপুর শহরের আলীপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আটক ওই ছেলের নাম বদরুল করিম ওরফে স্বপন (৩৫)। এলাকাবাসীর ভাষ্য, বদরুল প্রায়ই তাঁর মায়ের গায়ে হাত তুলতেন। শুক্রবার সকালেও মাকে কিল-ঘুষি মারতে মারতে বাড়ির সামনে রাস্তার ওপর নিয়ে যান তিনি। সেখানেও কিল–ঘুষি মারতে থাকেন।

ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মনিরুল ইসলাম জানান, সম্পত্তিসংক্রান্ত বিরোধের কারণে স্বপন প্রায়ই তাঁর মায়ের ওপর অত্যাচার করতেন। সপ্তাহ খানেক আগে তাঁর মা বিষয়টি কোতোয়ালি থানার পুলিশকে মৌখিকভাবে জানান। আজ শুক্রবার সকালে স্বপন তাঁর মাকে রাস্তায় ফেলে নির্যাতন করছেন—এ খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে স্বপনকে আটক করে।

উল্লেখ্য, ১৫ সেপ্টেম্বর ফরিদপুর শহরের কমলাপুর ডিআইবি বটতলা এলাকায় মোটরসাইকেলের জন্য মা-বাবার গায়ে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটে। নতুন মডেলের একটি মোটরসাইকেলের দাবিতে ১৭ বছরের কিশোর পেট্রল দিয়ে তাঁদের হত্যার চেষ্টা চালায়। এতে তার বাবা এ টি এম রফিকুল হুদা (৪৮) দগ্ধ হন। ছয় দিন পর গত বুধবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password