প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি করায় ছাত্র গ্রেফতার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা বিপ্লবী ছাত্রমৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক দিলীপ রায়কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ রোববার দুপুর ১২টার দিকে ক্যাম্পাস থেকে তাঁকে আটক করা হয়।

জানা যায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি করায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাশেদুল ইসলাম তাঁর বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা দায়ের করেন।

মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হ‌ুমায়ূন কবির বলেন, ‘ফেসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য করায় অনেকে দিলীপ রায়ের ওপর ক্ষিপ্ত ছিল। তাই পরিস্থিতি সামাল দিতে তাঁকে থানায় নিয়ে আসা হয়। বিকেলে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মামলা দায়েরের পর তাঁকে ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাঁকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হবে।’

বিপ্লবী ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি প্রদীপ মার্ডি বলেন, ‘কারও মন্তব্য ক্ষমতাসীন দলের বিরুদ্ধে যেতেই পারে। তাই বলে এভাবে আটক করা স্বৈরতন্ত্রের শামিল। কোনো অভিযোগ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এভাবে ছাত্রনেতাকে তুলে নিয়ে যাওয়া কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।’

এদিকে বেলা ১টার দিকে দিলীপ রায়ের শাস্তির দাবিতে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ। বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাশেদুল ইসলাম বলেন, ‘দিলীপ রায় বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটূক্তি, প্রধানমন্ত্রীকে হুমকি এবং আওয়ামী লীগকে নিয়ে উসকানিমূলক মন্তব্য করেছেন। এ জন্য আমরা তাঁর উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানিয়েছি।’

আজ রোববার সকালে প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি করে ফেসবুকে পৃথক তিনটি স্ট্যাটাস দেন দিলীপ রায়।

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password