বিএনপি দেশে জঙ্গিবাদের জন্ম দিয়েছে : আমু

আজ শ্রী কৃষ্ণের শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে আয়োজিত শোভাযাত্রায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া যুদ্ধাপরাধীদের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় বসিয়ে দেশে ধর্মান্ধতা ও জঙ্গিবাদের জন্ম দিয়েছে। তিনি বলেন, এ অপশক্তি দেশের অগ্রযাত্রা ব্যাহত করতে জঙ্গি হামলাসহ নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। দেশের এ অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে এবং জঙ্গিবাদের মূল উৎপাটনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যে ঐক্য গড়ে উঠেছে, তা সকল অপশক্তিকে রুখে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে বলেও তিনি দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটি ও বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ যৌথভাবে এ শোভাযাত্রার আয়োজন করেছে। রাজধানীর পলাশী প্রাঙ্গণ থেকে বের হওয়া এ শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিম, পুলিশের আইজিপি শহীদুল হক ও ঢাকার পুলিশ কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি জয়ন্ত সেন দীপুর সভাপতিত্বে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন কমিটির সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট তপন কুমার পাল। স্বাধীনতা বিরোধী চক্র বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্যদিয়ে সংবিধান থেকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও চার মূলনীতিকে ধ্বংস করেছে উল্লেখ করে আমু বলেন, তা পূর্নউদ্ধারে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে আমাদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

দুষ্টের দমন ও সৃষ্টের পালন করতে শ্রী কৃষ্ণের যেমন এ মর্তে আবির্ভাব ঘটেছিল, তেমনি দেশকে দুষ্ট জঙ্গিবাদ মুক্ত ও উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করতে আল্লাহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে বেছে নিয়েছেন বলে তিনি উল্লেখ করেন। তাই সব ধর্মের মানুষের প্রতি তিনি শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করারও আহবান জানান। আলোচনা পর্ব শেষে ঢাকেশ্বরী পলাশী প্রাঙ্গণ থেকে জন্মাষ্টমীর ঐতিহাসিক শোভাযাত্রাটি বের হয়। হিন্দু সম্প্রদায়ের নারী-পুরুষেরা ধর্মীয় নানা সাজ-সজ্জাসহ বাহারী সাজে সেজে শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করে।

শোভাযাত্রাটি কেন্দ্রীয় শহীদ প্রাঙ্গণ হয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন ভবন, গোলাপ শাহ মাজার গুলিস্তান ও নবাবপুর দিয়ে বাহাদুর শাহ পার্কে গিয়ে শেষ হবে। ঢাক, ঢোল, বাঁশি ও মৃদঙ্গের তালে তালে নানা বয়সী নারী-পুরুষ বাহারী সাজে সেজে এবং নেচে-গেয়ে সুসজ্জিত রথ, হাতি, ঘোড়া, গাড়ি, ভ্যানগাড়ি ও শতাধিক ট্রাকে করে শোভাযাত্রায় অংশ নেয়।

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password