রোজ ১০ জন ৬ মাস ধরে ধর্ষণ করে !

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

৬ মাস আগে মেয়েটি কলকাতা থেকে বিক্রি হয়ে যায়। তারপর থেকে ৬ মাস ধরে চলছে ধর্ষণ। মেয়েটি কোনোক্রমে জানিয়েছে, তাকে ৬ মাস ধরে প্রতিদিন ১০ জন করে ধর্ষণ করেছে।

মেয়েটির মুখ দিয়ে কথা বেরুচ্ছে না। থেকে থেকে চমকে উঠছে। শরীরে নানা জায়গায় গভীর ক্ষত। কোথাও কামড়ানোর দাগ। কোথাও আঁচড়। যৌনাঙ্গ দিয়ে অনবরত রক্ত ঝরছে। চিকিত্‍‌সকরা বলে দিয়েছেন, অবস্থা গুরুতর। এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না।

একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ও পুলিশের সাহায্যে দিল্লির রেড লাইট এলাকা থেকে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় গত সোমবার উদ্ধার করা হয়েছে ১৮ বছরের এক তরুণীকে। কলকাতা পুলিশের বিশেষ বাহিনী উদ্ধার করে ওই তরুণীকে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর পুলিশ জানতে পারে কী ভয়াবহ অত্যাচার করা হয়েছে তার উপর।

পুলিশকে মেয়েটি জানিয়েছে, গত এপ্রিলে কলকাতা থেকে পাচার করে দেয় এক ব্যক্তি। তারপর তাকে ঋষিকেশ, হরিদ্বার, মানালি, ম্যাঙ্গালোরসহ ভারতের নানা প্রান্তে নিয়ে যাওয়া হয়। মেয়েটির কথায়, ‘আমাকে রোজ ১০ জনের বেশি লোক ধর্ষণ করেছে ৬ মাস ধরে। আমি আর পারছি না। এর থেকে মৃত্যু ভালো।’

কলকাতা থেকে ওই তরুণীকে যে ব্যক্তি প্রথমে পাচার করেছিল, তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশের দাবি, এই ব্যক্তিকে জেরা করেই বড়সড় সেক্স র‍্যাকেটের কিনারা হবে। কলকাতা পুলিশের একটি বিশেষ দল ইতোমধ্যেই নিগৃহীতার বয়ান নিতে দিল্লি পাড়ি দিয়েছে। আপাতত দিল্লির তেগ বাহাদুর হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে মেয়েটি।

সূত্র: এই সময়

বাংলাদেশ সময় : ১৩৪৮ ঘন্টা, ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password