অপমান, লজ্জায় কাঁদলেন মুকুট হারিয়ে

 

বিনোদন ডেস্ক :

মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় তালগোল পাকিয়ে ফেললেন আয়োজকরা। লাস ভেগাসের প্ল্যানেট হলিউডে যখন আলোর ঝলকানি, পুলকিত কলম্বিয়া, ঠিক তখনই কান্নায় ভাসলেন কলম্বিয়ার প্রতিযোগী আরিয়াদনা গুতিয়েরেজ। আনন্দে নয়, তিনি কাঁদলেন মুকুট হারিয়ে।

ভুল করে তার মাথায় পরিয়ে দেয়া হয়েছিল মুকুট ও মিস ইউনিভার্স ২০১৫ লেখা স্যাশ। সেই মুকুট মাথায় নিয়েই তিনি হাত নাড়লেন দর্শকদের উদ্দেশে। আনন্দে তখন তার চোখে অশ্রু। আর কলম্বিয়ায় তখন আনন্দ বাধাহীন। কিন্তু ৫ মিনিটের মাথায় সেই আনন্দ, উচ্ছ্বাস হাওয়ায় মিলিয়ে গেল। কাঁদলেন আরিয়াদনা গুতিয়েরেজ। ঘোষণা এলো ভুল করেছেন আয়োজকরা।

তারা নাম ঘোষণার সময় ভুল করে মিস কলম্বিয়াকে মিস ইউনিভার্স ঘোষণা দিয়েছেন। আসলে এবারের মিস ইউনিভার্স হলেন ফিলিপাইনের সুন্দরী পিয়া অ্যালোনজো উর্টজব্যাক। সঙ্গে সঙ্গে মিস আরিয়াদনার মাথা থেকে খুলে নেয়া হলো টায়রা। গা থেকে খুলে নেয়া হলো মিস ইউনিভার্স লেখা স্যাশ।

এ সময় অপমানে, লজ্জায় এবং সর্বোপরি মুকুট হারানোর বেদনায় কান্নায় ভেসে যাচ্ছেন মিস আরিয়াদনা। তার চিবুক বেয়ে গড়িয়ে পড়ছে অশ্রু। মুহূর্তেই তার শরীর যেন ঠাণ্ডায় হিম হয়ে গেল। তার কাছে মনে হলো সবকিছু বিধ্বস্ত হয়ে গেছে। চারদিকের আলোর ঝলকানিকে বজ্রপাত বলে মনে হতে থাকে তার কাছে। ততক্ষণে মাথায় টায়রা ও শরীরে স্যাশে পরিয়ে দেয়া হয়েছে এবারের মিস ইউনিভার্স ফিলিপাইনের পিয়া অ্যালেনজো উর্টজব্যাককে।

আয়োজকদের এমন বিভ্রান্তিতে চমকে গেছেন বিশ্বের কোটি কোটি দর্শক, যারা রোববার দিবাগত রাতে টেলিভিশন পর্দায় সরাসরি প্রত্যক্ষ করেন এ আয়োজন। সামাজিক মিডিয়ায় উঠেছে সমালোচনার ঝড়। এত বড় আয়োজন। এখানে কি করে এত বড় ভুল হতে পারে! এ খবর দিয়েছে ডেইলি মেইল।

এতে বলা হয়, মিস ইউনিভার্স আয়োজক স্টিভ হার্ভি ভুল করে মিস ইউনিভার্স হিসেবে আরিয়াদনার নাম ঘোষণা করেন। পরে মঞ্চে ফিরে তিনি ভুলের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। ভুল সংশোধন করে পিয়াকে এ বছরের মিস ইউনিভার্স ও আরিয়াদনাকে ১ম রানার আপ ঘোষণা করেন। আরেক সুন্দরীর মাথায় মিস ইউনিভার্সের মুকুট পরানোর পর যখন ফিলিপিনো সুন্দরী জানতে পারেন তিনিই এ আসরের সেরা সুন্দরী তখন হঠাৎ করে হতচকিত হয়ে পড়েন তিনি। যেন অবিশ্বাস্য কোন বিষয় এসে ধরা দিয়েছে তার হাতে। এরপর গত বছরের মিস ইউনিভার্স আরেক কলম্বিয়ান স্বদেশি আরিয়াদনার মাথা থেকে মুকুট নিয়ে পিয়াকে পরিয়ে দেন। বলার অপেক্ষা রাখে না আরিয়াদনার জন্য অভিজ্ঞতাটা ছিল বিষাদের।

সেটা বুঝেই কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট হুয়ান ম্যানুয়েল সান্টোস আরিয়াদনার জন্য একটি টুইট করেছেন। লিখেছেন, ‘আমাদের জন্য তুমিই থাকবে মিস ইউনিভার্স, আমরা অনেক গর্বিত।’ মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় ফিলিপাইন এবার এটা নিয়ে তৃতীয় বার জয়ী হলো। আর আরিয়াদনা জিতলে টানা দুবার মিস ইউনিভার্স জয়ের গৌরব অর্জন করতে পারতো কলম্বিয়া।

বাংলাদেশ সময় : ০৯১৩ ঘন্টা, ২২ ডিসেম্বর, ২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password