উটকে চুম্বনের পর স্ত্রীকে তালাক !

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

পোষা উটশাবককে আদর করে চুমু খেয়েছিলেন সৌদি আরবের এক নববিবাহিত দম্পতি। মোবাইল ক্যামেরায় সেই ছবি তুলে স্মৃতিও ধরে রেখেছিলেন তাঁরা। কিন্তু ভালোবাসায় মশগুল ওই দম্পতি তখনো বোঝেননি এক চুমুর এত মূল্য হতে পারে।এই ঘটনার কিছুদিন পরেই ছেলের মোবাইলে উটের শাবককে চুমু খাওয়ার ছবিটি দেখেন তাঁর মা।

দেখেই আঁতকে উঠে মায়ের ‘ফতোয়া’, এভাবে চুমু খেয়ে সামাজিক ও ধর্মীয় নীতি লঙ্ঘন করেছেন তাঁদের বৌমা। তাই এই স্ত্রীকে তালাক দেবে তাঁর ছেলে। এরপর মায়ের ক্রমাগত চাপের কাছে নতিস্বীকার করে বউকে তালাক দেন ওই স্বামী।

সম্প্রতি ডন অনলাইনের সংবাদে উঠে এসেছে এই খবর। সংযুক্ত আরব আমিরাতের সংবাদমাধ্যম মানাইত অবলম্বনে করা এই খবরে ডন আরো জানায়, মায়ের চাপে তালাক দিলেও মনটা খচখচ করছিল ‘মাভক্ত’ সেই যুবকের। কারণ এই ঘটনার আদ্যোপান্তই যে তাঁর জানা। কয়েকদিন পরে তাই স্ত্রীকে ফিরিয়ে নিয়ে আসেন তিনি।

এখানেই ঘটনাটির মিলনান্তক সমাপ্তি হতে পারত। কিন্তু আবার বাদ সাধেন মা। হুঙ্কার ছাড়েন, হয় বাড়িতে তিনি থাকবেন নয়তো এই ‘ব্যভিচারী’ পুত্রবধূ। এ ছাড়া একবার তালাকের পর ‘সাবেক স্ত্রীকে’ বাড়ি নিয়ে আসা ধর্মও সমর্থন করে না। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মায়ের চাপে স্ত্রীকে আবার বাপের বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছেন ‘মাভক্ত’ ছেলে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪১৮ ঘণ্টা, ২০ ডিসেম্বর, ২০১৫,

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password