বিএনপি প্রার্থীর নির্বাচনী বৈঠকে গোলাগুলি,আহত ৫

জেলা প্রতিবেদক :

নোয়াখালীর চৌমুহনী পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপির প্রার্থী জহির উদ্দিন হারুনের নির্বাচনী বৈঠকে হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। হামলাকারীদের গুলি ও বোমার আঘাতে আহত হয়েছে অন্তত পাঁচজন। এর মধ্যে দুজন গুলিবিদ্ধ হয়েছে।

গতকাল শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে পৌরসভার হাজিপুর ৯ নম্বর ওয়ার্ডের নবদিগন্ত কিন্ডারগার্টেনের পাশের মাঠে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কাউকে আটক করতে পারেনি। উল্টো বিএনপির কর্মী-সমর্থকদের লাঠিপেটা করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিএনপির প্রার্থীর উঠান বৈঠকে হামলার ঘটনায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগকে দায়ী করেছে দলটি। তবে আওয়ামী লীগ অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

আহতদের মধ্যে দুজনের নাম জানা গেছে। তাঁরা হলেন শাওন ও ভুট্ট। গ্রেপ্তারের ভয়ে তাঁদের গোপনে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় লোকজন জানিয়েছে, বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী দলের পৌরসভা শাখার সভাপতি জহির উদ্দিন হারুন গতকাল সন্ধ্যার দিকে ৯ নম্বর ওয়ার্ডের নবদিগন্ত কিন্ডারগার্টেনের পাশের মাঠে এলাকার লোকজনকে নিয়ে উঠান বৈঠক করছিলেন। ওই সময় কয়েকজন মুখোশধারী দুর্বৃত্ত ঘটনাস্থলে এসে বৈঠক লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এতে শাওন ও ভুট্ট গুলিবিদ্ধ হন। পরে এলাকাবাসী দুর্বৃত্তদের ধাওয়া করলে তারা ১০-১২টি ককটেল ফাটিয়ে মোটরসাইকেলে করে পালিয়ে যায়। বোমার আঘাতে আহত হয় আরো তিনজন।

জহির উদ্দিন হারুন অভিযোগ করেন, সরকারদলীয় সমর্থক একদল মুখোশধারী তাঁর উঠান বৈঠকে এসে তাঁর দলের নেতাকর্মীকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি করে এবং ককটেল হামলা চালায়। অথচ পুলিশ এসে তাঁর সমর্থকদের লাঠিপেটা করে। এ অভিযোগ অস্বীকার করেন চৌমুহনী পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর ছিদ্দিক টিপু। তিনি কালের কণ্ঠকে বলেন, সরকারদলীয় কোনো নেতাকর্মী এ ধরনের কোনো হামলা করেনি। বিএনপির নিজেদের কোন্দলে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। বেগমগঞ্জ থানার ওসি গোলাম ফারুক বিএনপির প্রার্থীর বৈঠকে গুলির বিষয়টি সঠিক নয় বলে জানান।

তিনি দাবি করেন, বিএনপির অভ্যন্তরীণ কোন্দলে এ ঘটনা ঘটেছে। তারা ভোটারদের সহানুভূতি পেতে এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে তিনি মনে করেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে বলে ওসি জানান।

বাংলাদেশ সময়: ১২৫৫ ঘণ্টা, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password