গাজীপুরে স্ত্রীকে হত্যা করে স্বামীর আত্মহত্যা

জেলা প্রতিবেদক :

শনিবার রাত ১০টার দিকে গাজীপুর কালিয়াকৈরে স্ত্রী হালিমা বেগমকে (৩০) ছুরিকাঘাতে হত্যার পর রায়হান হোসেন (৩৮) নিজেও ওই ছুরিতে আত্মহত্যা করেছেন। কালিয়াকৈর উপজেলার সফিপুর পূর্বপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত হালিমা বেগম দিনাজপুরের বিরামপুর থানার হোসেনপুর গ্রামের আমিনুল ইসলামের মেয়ে। কাজ করতেন সফিপুর মাহমুদ ডেনিমস নামের একটি পোশাক কারখানায়।

তার স্বামী রায়হান আলী (৩৮) দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ থানার আলতাফ আলীর ছেলে এবং তিনি রিকশা চালাতেন। রানু (১৪) ও মুন্নুজান (১১) নামে দুটি মেয়ে এবং খালেদ (৫) নামে একটি ছেলে রয়েছে তাদের।

স্থানীয়রা জানায়, পারিবারিক কলহের জের ধরে শনিবার রাতে কারখানা থেকে বাসায় ফেরার পথে রাস্তার উপর ছুরিকাঘাতে রায়হান প্রথমে স্ত্রীর হালিমার মৃত্যু নিশ্চিত করে। পরে ওই ছুরিই নিজের পেটে ঢুকিয়ে আত্মহত্যা করেন।

কালিয়াকৈর থানার ওসি মো. আব্দুল মোতালেব মিয়া বলেন, দুই মাস আগে সফিপুর পূর্বপাড়া এলাকার চুন্নু মিয়ার বাড়ি ভাড়া নেন তিন সন্তানের এই জনক-জননী। প্রায়ই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া-ঝাটি হতো। ২০/২৫ দিন আগে রায়হান ঝগড়া করে স্ত্রী ও তিন সন্তানকে রেখে দেশের বাড়িতে চলে যান।

বৃহস্পতিবার বিকেলে বাসায় ফিরে এলে আবারো দুজনের মধ্যে কলহের সৃষ্টি হয়। এরই জের ধরে ছুটি শেষে রাত ১০টার দিকে কারখানা থেকে বাসায় ফেরার পথে মালেক স্পিনিং মিলস রোডে বাসার কাছাকাছি স্ত্রী হালিমাকে ছুরিকাঘাত করেন রায়হান।

পরে নিজের পেটেরও ছুরিকাঘাত করেন তিনি। স্থানীয়রা দুজনকে উদ্ধার করে সফিপুর জেনারেল হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উভয়কে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে বলেও জানান ওসি।

বাংলাদেশ সময়: ১১১৫ ঘণ্টা, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password