পৌর নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে না ফখরুলের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক :

আসন্ন পৌর নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে না এমন আশঙ্কা থাকলেও গণতান্ত্রিক আন্দোলনের অংশ হিসেবে বিএনপি পৌর নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে। দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আজ মঙ্গলবার এক যৌথ সভা শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। ফখরুল বলেন, নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে আশা করি না। তারপরও আমরা নির্বাচনে অংশ নিয়েছি গণতান্ত্রিক আন্দোলনের অংশ হিসেবে। ফখরুল বলেন, আমাদের অসংখ্য নেতাকর্মী এখন জেলে আছেন। বিভিন্ন পৌরসভায় আমাদের নির্বাচিত মেয়রদের নানা অজুহাতে বরখাস্ত করা হচ্ছে। গণতন্ত্রের নামে এ ধারা চলতে পারে না।

তিনি বলেন, মুক্তচিন্তা করার অধিকার থেকে আজ বাংলাদেশের মানুষ বঞ্চিত। একাত্তরে যে চেতনা নিয়ে যুদ্ধ করতে হয়েছিল, সে যুদ্ধ আমাদের আজো করতে হচ্ছে। আমরা যারা ভিন্ন চিন্তা, বা গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় বিরোধীদলের ভূমিকা পালন করি তাদের কোনো স্পেস নেই। আমরা কোনো সভা করতে পারি না। এমনকি জেলা শহরগুলোতেও সভা করতে দেয়া হয় না। দেশে বর্তমানে গণতন্ত্র নেই। সেই সঙ্গে নেই বাকস্বাধীনতা, মুক্তচিন্তা প্রকাশের স্বাধীনতা। মেয়র ও উপজেলা পর্যায়ে চেয়ারম্যানদের বরখাস্ত করা হচ্ছে। যদি দেশে গণতন্ত্র থাকতো তাহলে এই অরাজকতা থাকতো না।

সভায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, দলের যুগ্ম মহাসচিব মোহাম্মদ শাহজাহান, ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন, যুবদল সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, বরিশাল বিভাগীয় সাংগঠনিক মজিবুর রহমান সরোয়ারসহ দলের কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। সভায় আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি কৌশল নির্ধারণ, শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও বিজয় দিবস উদযাপনের বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। বিজয় দিবস উপলক্ষে ১৫ দিনের বিএনপির কর্মসূচিও ঘোষণা করেন তিনি। এর মধ্যে ১৬ ডিসেম্বর রাজধানীতে বর্নাঢ্য র‍্যালির আয়োজন করেছে দলটি।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৪৭ ঘণ্টা, ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password