ল্যাবএইড হাসপাতালকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক :

অনুমোদনহীন ওষুধ রাখা ও বিক্রির অভিযোগে ল্যাবএইড হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় অনুমোদনহীন ৫ লাখ টাকার দেশি-বিদেশি ওষুধও জব্দ করা হয়।

গতকাল রোববার (০৬ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত ধানমন্ডিতে অবস্থিত হাসপাতালটিতে অভিযান চালিয়ে ওষুধ জব্দ ও পরে জরিমানা করা হয়।

র‌্যাব ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফিরোজ আহমদে সাংবাদিকদের জানান, কয়েকঘণ্টা ব্যাপী অভিযানে ধানমন্ডির ল্যাবএইড হাসপাতাল থেকে এন্টিবায়োটিক ও বিভিন্ন ইঞ্জেকশসহ ২৬ ধরনের ওষুধ জব্দ করা হয়েছে। এসব বিদেশি ওষুদের মূল্য প্রায় ৫ লাখ টাকা বলে জানান তিনি।

র‌্যাবের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বিদেশি ওষুধের নাম করে আনা নিম্নমানের অনুমোদনহীন এসব ওষুধ ড্রাগ প্রশাসন অধিদপ্তর কর্তৃক পরীক্ষিত ও অনুমোদিত নয়। অনুমোদনহীন ওষুধ রাখা ও বিক্রির অভিযোগে ল্যাবএইড কর্তৃপক্ষকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এছাড়া রোগীদের ভেজাল ওষুধ সরবরাহের দায়ে ল্যাবএইড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের এক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের সহকারীকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করে আদায় করা হয়েছে।

র‌্যাব ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফিরোজ আহমদে বলেন, জাতীয় বক্ষব্যাধি ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের অধ্যাপক আলী হোসেন ল্যাবএইডে রোগী দেখেন। তার সহকারী নজরুল ইসলাম ভারত থেকে আসা হিস্টামিন জাতীয় ওষুধের মিক্সার তৈরি করে খালি বোতলে ভরে উচ্চ দামে বিক্রি করে সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিল। এজন্য তাকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এর আগেও অননুমোদিত, ভেজাল ও আমদানি নিষিদ্ধ ওষুধ বিক্রির অভিযোগে লাজ ফার্মা, এ্যাপোলো ফার্মেসিসহ বেশ কয়েকটি নামি-দামি ফার্মেসিকে আর্থিক জরিমানা করে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়াও শনিবার (৫ ডিসেম্বর) ফার্মগেট এলাকায় অবস্থিত আল-রাজী হাসপাতালকে প্রায় ২০ লাখ জরিমানা করে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বাংলাদেশ সময়: ১১০৮ ঘণ্টা, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password