গোপালগঞ্জে এক পরিবারের ২ ভাইকে হত্যা

জেলা প্রতিবেদক :

বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) রাত পৌনে ৯টার দিকে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ভোজেরগাতী গ্রামে রায়হান সরদার (১০) ও তার ভাই রইজ সরদারকে (৪) শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শিশু দু’টির বাবা ইউসুফ সরদার ও মা কুলসুম বেগমকে থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ।

ইউসুফ সরদার জেলার টুঙ্গীপাড়া উপজেলার গহওরডাঙ্গা মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করেন। নিহতদের মধ্যে রায়হান স্থানীয় আব্দুর রউফ প্রাইমারি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র। এদিকে, হত্যার সময় দুই দুর্বৃত্ত নিহতদের মা কুলসুমের হাত-মুখ বেঁধে রেখে দুই শিশু সন্তানকে হত্যা করে পালিয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন নিহতদের মা।

খবর পেয়ে গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন ও সহকারী পুলিশ সুপারসহ (সার্কেল) পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তদন্ত শুরু করেছেন। এছাড়া পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) একটি তদন্ত দলও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

তবে, কারা কেন শিশু দু’টিকে হত্যা করেছে তা নিশ্চিত করে বলতে পারছে না পুলিশ। অবশ্য স্থানীয় কেউ কেউ মন্তব্য করেছেন যে স্বামী চাকরির কারণে বেশিরভাগ সময় এলাকার বাইরে থাকেন। এ সুযোগে তার স্ত্রীর সঙ্গে হত্যাকারী দু’জনের মধ্যে একজনের পরকীয়ার সম্পর্ক থাকতে পারে।

এ হত্যাকাণ্ড নিয়ে কিছুটা ধূম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে। শিশু দু’টির বাবা ও মাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গোপালগঞ্জ সদর থানায় আনা হয়েছে বলে জানান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সেলিম রেজা।

গোপালগঞ্জে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, বিষয়টি প্রাথমিকভাবে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। আশা করছি, দ্রুতই এ ঘটনার রহস্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে।

বাংলাদেশ সময়: ০৯২০ ঘণ্টা, ০৪ ডিসেম্বর , ২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password