এক দিনে ৫০ জনের শিরশ্ছেদ করবে সৌদি সরকার !

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

সন্ত্রাসী ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে একই দিনে ৫০ জনেরও বেশি অভিযুক্তের শিরশ্ছেদ করতে যাচ্ছে সৌদি আরব। তাদের মধ্যে তিনজন আছে গ্রেপ্তারের সময় যাদের বয়স ১৮ বছরের কম ছিল।

রাজপরিবারে ক্ষমতার দ্বন্দ্বের কারণে এমন দুর্ভাগ্য বরণ করতে হচ্ছে অভিযুক্তদের। একটি সূত্র জানিয়েছে, কিছুদিনের মধ্যেই তাদের শিরশ্ছেদ করা হবে। এ ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

এ বছর এরই মধ্যে সৌদি আরবে ১৫১ অপরাধীর শিরশ্ছেদ করা হয়েছে। তবে সন্ত্রাসের অভিযোগে এবারই প্রথম শিরশ্ছেদ করতে যাচ্ছে মরুভূমির দেশটি। গত বছর ৯০ জনের শিরশ্ছেদ করা হলেও সেখানে সন্ত্রাসের অভিযোগে কাউকে শিরশ্ছেদ করা হয়নি।

সৌদি আরবের সংবাদপত্র ওকাজ জানিয়েছে, সন্ত্রাসের অভিযোগে ৫৫ জন অভিযুক্ত শিরশ্ছেদের প্রহর গুনছে। আল-রিয়াদ পত্রিকা জানিয়েছে, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে দ্রুত ৫২ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হবে। অন্য একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, আল-কায়েদার সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত কয়েকজনসহ পঞ্চাশের বেশি অভিযুক্তকে শিরশ্ছেদ করা হবে।

অভিযুক্তদের অপরাধ সম্পর্কে ওকাজ জানিয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে সরকার উত্খাতের চষ্টো, আক্রমণের জন্য হালকা অস্ত্র, বিস্ফোরক এবং ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র বহন করার অভিযোগ রয়েছে।

শিরশ্ছেদ নিয়ে অ্যামনেস্টির এ মুহূর্তে কিছু করার না থাকলেও বিষয়টি তারা গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে। এ বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে অ্যামনেস্টির মধ্যপ্রাচ্য এবং উত্তর আফ্রিকার ডেপুটি ডিরেক্টর জেমস লিঞ্চ বলেন, ‘এটা পরিষ্কার যে সেৌদি আরব কর্তৃপক্ষ রাজনৈতিক সমস্যা সমধানের জন্য সন্ত্রাস মোকাবিলার ভান করছে।

অভিযুক্তদের মধ্যে তিনজন রয়েছে, যাদের গ্রেপ্তারের সময় বয়স ১৮ বছরের কম ছিল। পীড়নের মাধ্যমে তাদের অপরাধ স্বীকার করতে বাধ্য করা হয়েছে।’ লিঞ্চ সতর্ক করে বলেন, ‘এসব অভিযুক্তের শিরশ্ছেদ করা ঠিক হবে না। মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয় এমন অভিযোগগুলোর প্রকৃত ঘটনা গোপন করার বিষয় থেকে সৌদি আরবের দূরে থাকা উচিত।’

ধারণা করা হচ্ছে, ২০১২ সালে নিরাপত্তাকর্মীদের প্রতি গুলি করার দায়ে গ্রেপ্তার করা শিয়া সম্প্রদায়ের শেখ নিমর আল নিমরেরও শিরশ্ছেদ করা হবে।

সূত্র : এএফপি

বাংলাদেশ সময়: ০৯৪২ ঘণ্টা, ২৮ নভেম্বর,২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password