মাঠে অপমানিত তামিম!

স্পোর্টস ডেস্ক :
ভীষণ অপ্রীতিকর এক ঘটনার সাক্ষী হলো কাল বিপিএল। তামিম ইকবাল শুনলেন গালি, অন্তত বাঁহাতি ওপেনারের দাবি সেটাই! চিটাগং ভাইকিংস-সিলেট সুপার স্টারস ম্যাচের আগে মঞ্চস্থ হলো নাটকের পর নাটক।

একপর্যায়ে তামিমের সঙ্গে সিলেটের মালিক আজিজুল ইসলামের বাগ্বিতণ্ডা। চিটাগং অধিনায়ক ম্যাচ শেষের সংবাদ সম্মেলনে স্পষ্ট জানালেন, তাঁর বাবা-মা তুলে বাজে মন্তব্য করা হয়েছে। কে মন্তব্য করেছেন, নামটা স্পষ্ট উল্লেখ না করলেও ইঙ্গিতটা সিলেটের মালিকের দিকেই।

টসের পর ব্যাটিংয়ে নেমে সিলেট দলের খেলোয়াড় তালিকার বাইরেও দুজন বিদেশি খেলোয়াড় দেখে আপত্তি জানিয়েছিলেন চিটাগং অধিনায়ক। জটিলতার নিরসন না হওয়া পর্যন্ত তামিম সতীর্থদের সঙ্গে অপেক্ষা করতে থাকেন ড্রেসিংরুমের সামনে রাখা চেয়ারে। এ সময়ই তামিমের সঙ্গে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হয় সিলেটের মালিকের।

ঘটনাটা তামিম ব্যাখ্যা করলেন এভাবে, ‘জাতীয় দলের খেলোয়াড়কে সম্মান দেখানো উচিত। আপনার কাছে অনেক টাকা থাকতে পারে, তার মানে এই নয়, একজন জাতীয় দলের খেলোয়াড়ের সঙ্গে ভিখিরির মতো আচরণ করবেন! আমরা এখানে এসেছি খেলতে। বাবা-মায়ের নামে গালি শুনতে আসিনি। তাঁকে বিনয়ের সঙ্গে বারবার “স্যার” বলে সম্বোধন করেছি। আমি বসে ছিলাম। আমাকে উঠে দাঁড়াতে বললেন। তা-ই করলাম। তিনি আমার পরিবারকে টেনে বাজে মন্তব্য করলেন। যা খুবই অপমানজনক।’

তামিমের এখন একটাই চাওয়া, ঘটনার সুষ্ঠু বিচার করবে বিসিবি। ঘটানাকে ‘দুঃখজনক’ বলে পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দিলেন বিপিএল টেকনিক্যাল কমিটির প্রধান জালাল ইউনুস, ‘ম্যাচ শেষে আমরা কথা বলেছি। মাঠে আমাদের অ্যান্টিকরাপশন বিভাগের একজন মেজর ছিলেন। তিনিও ব্যাপারটা দেখেছেন। উনার কাছ থেকে আমরা প্রতিবেদন নেব। এরপর এ বিষয়ে অ্যাকশনে যাব।’

সিলেটের মালিক আজিজুল ইসলামের ছেলে আজিমুল ইসলাম অবশ্য দাবি করেছেন, তাঁর বাবা এমন কিছুই বলেননি। বরং তামিমই আজিজুলের সঙ্গে বাজে আচরণ করেছেন, ‘সম্পূর্ণ মিথ্যা, আব্বা ওরকম কিছুই বলেননি। উনি তামিমকে বলেছেন, তুমি খেলোয়াড়। তোমার এখানে কথা বলা ঠিক নয়। তুমি তোমার কাজ করো। এরপরই তামিম ও রকম গালাগাল করল। আমাদের কাছে ভিডিও ফুটেজ আছে।’

তামিমের বিরুদ্ধে নাকি বিসিবির কাছে মৌখিকভাবে অভিযোগও করেছেন তাঁরা।

বাংলাদেশ সময়: ১০০২ ঘণ্টা, ২৪ নভেম্বর,২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password