‘মেসির হাঁটুতে কেউ মারবে না’

73058_GettyImages-476120890

মাত্রই হাঁটুর চোট সেরে উঠেছেন। অনুশীলন করছেন ঠিকই, কিন্তু লিওনেল মেসি এল ক্লাসিকোতে খেলবেন কি না এ নিয়ে শঙ্কা এখনো কাটেনি। মাঠে নামলেও এসব ক্ষেত্রে যা হয়, নতুন করে আঘাত পাওয়ার একটা শঙ্কা ঘিরে থাকেই। তবে সতীর্থ লুইস সুয়ারেজের কথায় স্বস্তি পেলেও পেতে পারেন মেসি। উরুগুইয়ান স্ট্রাইকারের বিশ্বাস, অন্তত ইচ্ছে করে কেউ মেসির হাঁটুতে আঘাত করবে না।

আর দুদিন পরই স্প্যানিশ লিগে রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে মহারণে নামবে বার্সেলোনা। ‘মহারণ’ বলাটা বোধহয় খুব বাড়াবাড়ি হয়ে যায় না—জয় পরাজয়ের হিসেবের বাইরেও এই ম্যাচটি যে দুই ক্লাবের অহমের লড়াই, ইতিহাস-ঐতিহ্যের লড়াই। চোট কাটিয়ে দুই মাস পর এই ম্যাচ দিয়েই মাঠে ফিরতে পারেন মেসি।

বার্সার আশঙ্কা, ‘এল ক্লাসিকো’ ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতাকে শুরু থেকেই আঘাত দিয়ে মাঠের বাইরে পাঠিয়ে দিতে চাইবে রিয়াল। গত কয়েকটি ক্লাসিকোতে যে সবচেয়ে বেশি ফাউলের শিকার হওয়া খেলোয়াড়দের একজন এই আর্জেন্টাইন তারকা। তার ওপর এবার তো ‘অ্যাকিলিস হিল’ হিসেবে তাঁর হাঁটু আছেই। কাতালান ক্লাবটির ভয় তাই খুব অমূলক বলে উড়িয়ে দেওয়া যায় না, এমন অলক্ষুনে কিছু ঘটলে দীর্ঘ সময়ের জন্যই মাঠের বাইরে চলে যেতে হবে মেসিকে।

শঙ্কা আছে রিয়ালেরও। তাদের শঙ্কা ডিফেন্ডার সার্জিও রামোসকে ঘিরেই। লিগে সর্বশেষ ম্যাচে সেভিয়ার সঙ্গেই কাঁধে চোট পেয়েছেন রিয়াল অধিনায়ক। চোটটা যথেষ্ট গুরুতরই। এতটাই গুরুতর যে অস্ত্রোপচারও নাকি লাগবে। এল ক্লাসিকোর কারণেই আপাতত তা থামিয়ে রেখেছেন। ক্লাসিকোতে তিনিও যদি আবার কাঁধে চোট পান, তাহলে অবস্থা আরও বেগতিক হয়ে যেতে পারে।

তবে বার্সা স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজের তেমন কোনো শঙ্কা নেই। তাঁর বিশ্বাস, লিওনেল মেসির হাঁটুকে ‘লক্ষ্য’ করে খেলতে নামবে না রিয়ালের খেলোয়াড়েরা। বার্সাও তেমনটি করবে না রামোসের বেলায়। বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে সুয়ারেজ আশার বাণীই শোনালেন, ‘আমার মনে হয় না কেউ সার্জিও রামোসের কাঁধে আঘাত করতে চাইবে।

মেসির হাঁটুতেও কেউ মারবে বলে মনে হয় না। আমরা সবাই সতীর্থ ফুটবলার ও পেশাদার।’ মহারণ হলেও এই ম্যাচটিকে স্প্যানিশ লিগের শিরোপা নির্ধারক মনে করছেন না সুয়ারেজ। দুটি দল এখন আছে লিগের এক ও দুই নম্বরে। বার্সা এই ম্যাচে জিতলে রিয়ালের চেয়ে এগিয়ে যাবে ৬ পয়েন্টে। রিয়াল জিতলে পয়েন্ট সমান হলেও গোল ব্যবধান ও মুখোমুখি লড়াইয়ের হিসেবে বার্সাকে নামিয়ে নিজেরা উঠে যাবে শীর্ষে।

জিতলে মনস্তাত্ত্বিক সুবিধা পাওয়া যাবে ঠিকই, তবে এই ম্যাচে জয়ী দলই শিরোপা লড়াইয়ে এগিয়ে যাবে, এমনটা ভাবছেন না সুয়ারেজ।
এক বছর আগে এই মাঠেই বার্সার হয়ে তাঁর অভিষেক হয়েছিল।

আবারও এই মাঠে ফেরাটা বিশেষ কিছু হবে জানিয়েও ম্যাচটিকে শুধুই একটি ম্যাচ হিসেবে দেখতে চান এই উরুগুইয়ান, ‘ক্লাসিকোর মতো ম্যাচগুলোর ফল সেরা খেলোয়াড়েরাই নির্ধারণ করে দেয়। তবে এটি শিরোপা নির্ধারক হবে না। এখনো অনেক ম্যাচ বাকি আছে, আর অ্যাটলেটিকোও এই বিষয়ে বড় ভূমিকা রাখবে।’

তথ্যসূত্র: গোলডটকম, ডেইলি মেইল।

বাংলাদেশ সময়: ২০১২ ঘণ্টা, ১৯ নভেম্বর,২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password