ঘৃণার বদলে দানের পথ বেছে নিলেন মুসলিম নারী

অন্যান্য ডেস্ক :

সুজান কারল্যান্ড আসলে একজন অষ্ট্রেলিয়ান নারী। সম্প্রতি তিনি একজন মুসলিমকে বিয়ে করেন। আর তাতেই বিপত্তি। সুজানকে তাই প্রতিনিয়ত শুনতে হয় তিনি নাকি খুন, যৌনতা এসব পছন্দ করেন।

এমন কথা ফেসবুক-ট্যুইটারে প্রায়ই দেখতে হয় অস্ট্রেলিয়ার বাসিন্দা সুজান কারল্যান্ডকে। মনে মনে রাগ করেছেন কিন্তু থামাতে পারেননি। তাই এবার উল্টো পথই বেছে নিলেন ওই সুজান।

তিনি ঠিক করলেন যতবার তাঁর উদ্দেশে এই ধরনের ট্যুইট আসবে, ততবার তিনি ডলার দান করবেন ইউনিসেফকে। ইতিমধ্যে তিনি ১০০০ ডলার দান করেও ফেলেছেন।

অস্ট্রেলিয়ার এক মুসলিম ব্যক্তিকে বিয়ে করার পর থেকেই তাঁর কাছে এই ধরনের অস্বস্তিকর মেসেজ আসতে থাকে। তিনি নাকি যুদ্ধ-খুন-যৌনতা এসবই কেবলমাত্র পছন্দ করেন। অনেকে তাঁকে অস্ট্রেলিয়া ছাড়ার হুমকিও দেন, কেউ আবার তাঁর মৃত্যুকামনা করেন। জিহাদি বলে সম্বোধন করা হয় তাঁকে।

যখন তিনি সবাইকে ব্লক করতে করতে পাগল হয়ে যাচ্ছিলেন সেইসময়ই এই উপায়টা মাথায় আসে তাঁর। তাই এই অভিনব উপায়ে প্রতিবাদ জানাতে শুরু করেছেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪৯ ঘণ্টা, ১৫ নভেম্বর,২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password