৩৩টি ছুরিকাঘাতে খুন হলো স্কুল ছাত্র

জেলা প্রতিবেদক :

শুক্রবার সন্ধ্যায় হবিগঞ্জ সদর উপজেলার বালিকান্দি গ্রামে জলপাই পাড়া নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে। এ ঘটনা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ঘাতক রিপন ভাবী পারভিনকে আটক করা হয়েছে।

নিহতের নাম লায়েছ চৌধুরী (১৩)। সে বালিকান্দি গ্রামের সৌদি প্রবাসী নয়ন চৌধুরীর ছেলে। উচাইল উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্র ছিল লায়েছ।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্র জানায়, নিহত লায়েছ চৌধুরী সঙ্গে পার্শ্ববর্তী বাড়ীর মাহরাজ মিয়ার ছেলে রিপন মিয়ার (২২) সঙ্গে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে প্রায়ই ঝগড়া হতো।

শুক্রবার দুপুরে জলাপাই পাড়াকে কেন্দ্র তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। পরে বাড়ির লোকজন তাদের এ বিরোধ নিষ্পতি করে দেন।

বিকেলে তারা একসঙ্গে খেলাধুলা করে। এর পর সন্ধ্যায় রিপন ও তার সহযোগীরা লায়েছ চৌধুরীকে বাড়ি পাশের জমিতে নিয়ে গিয়ে ছুরিকাঘাত করতে থাকে। এ সময় তৌহিদ মিয়া নামে লায়েছের এক সহপাঠী এ দৃশ্য দেখে তার মা-বাবাকে জানায়।

খবর পেয়ে তার মা-বাবা ও পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে গেলে রিপন ও তার সহযোগীরা পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় লায়েছকে বাড়ি নিয়ে গেলে সে তার মা-বাবার কাছে তার ঘাতকদের নাম বলে। এরপরই তার মৃত্যু ঘটে।

সন্ধ্যা ৭টার দিকে তার চাচা উজ্জ্বল মিয়া হবিগঞ্জ সদর থানায় গিয়ে ঘটনাটি জানালে ওসি নাজিম উদ্দিনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে সদর আধুনিক হাসপাতালে মর্গে নিয়ে আসে।

সেখানে এসআই ওয়াহেদ গাজী লায়েছের লাশের ময়না তদন্ত করতে গিয়ে দেখেন শরীরের বিভিন্ন স্থানে ৩৩টি ছুরিকাঘাত করা হয়েছে।। এসব ছুরিকাঘাতের দৃশ্য দেখে অনেকেই মাথা ঘুরে পড়ে যান।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি নাজিম উদ্দিন বলেন, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিপনের ভাবীকে আটক করা হয়েছে। রিপনকে ধরার জন্য পুলিশ অব্যাহত অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১০৫৮ ঘণ্টা, ০৭ নভেম্বর,২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password