সামাজিক ব্যবসা সম্মেলন বার্লিনে আজ শুরু

নিউজ ডেস্ক :

দারিদ্র্য ও বেকারত্বমুক্ত এক পৃথিবী তৈরির স্বপ্ন সামনে রেখে আজ বুধবার থেকে জার্মানির বার্লিনে শুরু হচ্ছে চার দিনব্যাপী বৈশ্বিক সামাজিক ব্যবসা সম্মেলন-২০১৫। সপ্তমবারের মতো এ সম্মেলনের আয়োজন করেছে বাংলাদেশের ইউনূস সেন্টার ও জার্মানির গ্রামীণ ক্রিয়েটিভ ল্যাব। গত বছর মেক্সিকোতে এ সম্মেলন হয়েছিল।

আয়োজকেরা জানিয়েছেন, বিশ্বজুড়ে জার্মানির রাজধানী বার্লিন পরিচিত নতুন ধারণা বা নতুন চিন্তার (সিটি অব ক্রিয়েটিভ আইডিয়া) শহর হিসেবে। এ কারণে এবারের সম্মেলনের জন্য এ শহরটিকে বেছে নেওয়া হয়েছে। তাই এ শহরে অনুষ্ঠিত এবারের সম্মেলন থেকে বিশ্বকে দারিদ্র্য ও বেকারত্বমুক্ত করার উদ্ভাবনী কোনো ধারণা বেরিয়ে আসবে বলে আশা করছেন আয়োজকেরা।

যে ধারণার হাত ধরে ভবিষ্যতে বিশ্বজুড়ে আরও প্রসারিত হবে সামাজিক ব্যবসার বিস্তার। যে ব্যবসার মূল লক্ষ্যই হচ্ছে—ব্যবসায়িকভাবে একটি প্রতিষ্ঠান মুনাফা করবে, কিন্তু তার বিপরীতে কোনো লভ্যাংশ বিতরণ করা হবে না। বরং মুনাফার অর্থ পুনর্বিনিয়োগ করা হবে, যার মাধ্যমে তৈরি হবে নতুন নতুন কর্মসংস্থান।
ঐতিহ্যঘেরা বার্লিন শহরের ‘টেম্পেলহপ’ নামের পুরাতন অব্যবহৃত এক বিমানবন্দরে আজ স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ছয়টায় (বাংলাদেশ সময় রাত ১১টায়) এ সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে। তবে আড়ম্বরপূর্ণ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের কোনো আয়োজন নেই।

অংশগ্রহণকারীদের পারস্পরিক পরিচয় পর্বের মধ্য দিয়েই শুরু হবে এবারের আয়োজন। এর পরই ভিডিও বার্তার মাধ্যমে অংশগ্রহণকারীদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন শান্তিতে নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ এবং গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ও সামাজিক ব্যবসা ধারণার জনক ড. মুহাম্মদ ইউনূস। এ ছাড়া বক্তব্য দেন বৈশ্বিক সামাজিক ব্যবসা সম্মেলনের প্রধান হ্যানস রিটজ।

আয়োজকেরা জানিয়েছেন, শারীরিক অসুস্থতার কারণে ড. ইউনূস এবারের সম্মেলনে সশরীরে উপস্থিত থাকতে পারছেন না। বর্তমানে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন। তবে সম্মেলনে একাধিক ভিডিও বার্তায় তাঁর অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে। আয়োজকেরা জানিয়েছেন, এবারের সম্মেলনে বিশ্বের প্রায় ৭০টি দেশ থেকে সহস্রাধিক বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করবেন।

আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের আগেই সম্মেলনকে ঘিরে গতকাল থেকে কার্যক্রম শুরু হয়ে গেছে। তারই অংশ হিসেবে গতকাল বিশ্বের বিভিন্ন দেশের গবেষক, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে দিনব্যাপী এক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

আয়োজনের সঙ্গে যুক্ত একাধিক কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সম্প্রতি জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য বা এসডিজির লক্ষ্যমাত্রাগুলো পূরণে কীভাবে সামাজিক ব্যবসা ভূমিকা রাখতে পারে, তার পথ অনুসন্ধানের চেষ্টা করা হবে এবারের সম্মেলনে। এ জন্য একাধিক সেমিনারের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এ ছাড়া চার দিনের এই সম্মেলনে বিশ্বের সমসাময়িক বিভিন্ন সমস্যাকে আলোচনার বিষয়বস্তু করা হয়েছে।

ইউনূস সোশ্যাল বিজনেস জার্মানির প্রধান নির্বাহী সাসকিয়া ব্রুচতেন জানিয়েছেন, আন্তর্জাতিকভাবে খ্যাতিমান ৫০ জন আমন্ত্রিত বিশেষজ্ঞ এসব আলোচনায় অংশ নেবেন। এঁদের মধ্যে রয়েছেন বৈজ্ঞানিক, সামাজিক ব্যবসা উদ্যোক্তা, ব্যবসায়ী নেতা, করপোরেট ব্যক্তিত্বসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সফল ব্যক্তিরা।
সম্মেলনের উদ্বোধনী দিনে আজ ব্যক্তি অর্থনীতি থেকে মানবিক অর্থনীতি বিষয়ের ওপর বিশেষজ্ঞ মতামত তুলে ধরবেন ফ্রান্সভিত্তিক বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান ডানোনের প্রধান নির্বাহী অধ্যাপক তানিয়া সিনগার।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৫ ঘণ্টা, ০৪ নভেম্বর,২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password