দুটি ছাগল মেরে ফেলার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি :

শত্রুতার জের ধরে যশোর সদর উপজেলার কামালপুর গ্রামে দুটি ছাগল মেরে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ছাগল দুটি মেরে ফেলা হয়েছে কি না, তা নিশ্চিত হতে গতকাল সোমবার ছাগলগুলোর শরীরের বিভিন্ন অংশের নমুনা ঢাকার প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের রোগ অনুসন্ধান কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার দুপুরে কামালপুর গ্রামের মোহর আলীর ও তাঁর স্বজনের দুটি ছাগল প্রতিবেশী আক্কাছ আলী আটক করেন। ওই ছাগল ছেড়ে দিতে বললে আক্কাছের সঙ্গে মোহরের স্ত্রী রুমা বেগমের ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে আক্কাছ ছাগল দুটি ছেড়ে দেন। কিন্তু গত রোববার বেলা একটার দিকে ছাগল দুটি আক্কাছের ঘেরের পাড়ে গেলে তিনি পুনরায় ছাগলগুলো আটক করেন।

পরে পাশে হরিনার বিলে মৃত অবস্থায় ছাগল দুটি পাওয়া যায়। ওই দিনই ছাগল মেরে ফেলার অভিযোগ এনে মোহর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ ছাগল দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের যশোর সদর উপজেলা কার্যালয়ে পাঠায়। সেখানে ওই দিনই ছাগলের ময়নাতদন্ত শেষ হয়।

সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা তপনেশ্বর রায় বলেন, ছাগল দুটির কিডনি, ফুসফুসসহ শরীরের বিভিন্ন অংশের নমুনা পরীক্ষার জন্য ঢাকার রোগ অনুসন্ধান কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। ওই প্রতিবেদন আসার পর বলা যাবে ছাগল দুটি মেরে ফেলা হয়েছে কি না।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) এইচ এম শহিদুল ইসলাম বলেন, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে ছাগল দুটি মেরে ফেলার অভিযোগ প্রমাণিত হলে মোহরের অভিযোগটি নিয়মিত মামলা হিসেবে নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১০১৫ ঘণ্টা, ২৭ অক্টোবর,২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password