হজ ফ্লাইটের শিডিউল ঝামেলা

কিভাবে হজযাত্রীদের কাছে নতুন করে টাকা চাইবে এ নিয়ে চিন্তিত তারা। এমন অবস্থায় বিমান ও ধর্ম মন্ত্রণালয় এখন মুখোমুখি। একে অপরের ওপর দোষ চাপাতে চাইছে তারা। ভিসা জটিলতা, মোয়াল্লেম ফি’সহ নানা কারণে ৪০ হাজার যাত্রীর এবার হজযাত্রা নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। এ শঙ্কা আদৌ কাটবে কি না এ নিয়ে চিন্তিত বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন এবং ধর্ম মন্ত্রণালয়। ভিসা ফি’র অতিরিক্ত ২০০০ রিয়েল জমা দেয়ার নির্দেশনার কারণে হজ এজেন্সিগুলোও বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েছে।

বিমান মন্ত্রণালয় বলছে, ধর্ম মন্ত্রণালয় ও হজ এজেন্সিগুলোর জটিলতার কারণে এমন সংকট। জটিলতা কাটাতে গণবিজ্ঞপ্তি দেয়ার কথা ভাবছে ধর্ম মন্ত্রণালয় মন্ত্রণালয় মনে করে, গণবিজ্ঞপ্তি দিলে এজেন্সিগুলোকে অতিরিক্ত ২০০০ রিয়েল আদায়ে সুবিধা হবে। বিজ্ঞপ্তি না দিলে ভিসা সংগ্রহ করতে আরো দেরি হবে। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেন, ভিসা জটিলতা ও মোয়াল্লেম ফি’সহ নানা কারণে যাত্রীরা সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছেন। ফলে বাংলাদেশ বিমানে ১৭৭টি ফ্লাইটের মধ্যে ১২টি হজ ফ্লাইট এরই মধ্যে বাতিল হয়েছে। ফ্লাইট বাতিল হওয়ার কারণে পরের দিকে বিমানে যাত্রী পরিবহনের চাপ বাড়বে।

তিনি বলেন, ৮৫ হাজার যাত্রীর পাসপোর্ট এখনও হাতে পায়নি হজ অফিস। টিকিট পেয়েও ভিসা জটিলতায় সাত হাজারের বেশি যাত্রী জেদ্দা যেতে পারেনি। এখন পর্যন্ত ভিসা পেয়েছেন ৪১ হাজার ৭১৪ জন। এদিকে হজ নিয়ে শঙ্কার বিষয়টি খোলাসা করতে আজ বেলা পৌনে ১২টায় সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়। এতে ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান উপস্থিত থাকবেন। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ভিসা সংক্রান্ত জটিলতা খুব সহসা না কাটলে হজ ফ্লাইট পরিচালনায় বিপর্যয় দেখা দিতে পারে। কারণ এভাবে ফ্লাইট বাতিল হতে থাকলে শেষ দিকে যাত্রী পরিবহনে নানা সমস্যা পোহাতে হবে।

বিমান মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, গত তিন দিনে বাংলাদেশ বিমানের ১৭৭টি ফ্লাইটের মধ্যে ১২টি হজ ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। বাতিল এসব ফ্লাইটে চার হাজারের বেশি যাত্রী যেতে পারতেন। এছাড়া গতকাল পর্যন্ত ভিসা পেয়েছেন ৪১ হাজার ৭১৪ জন। এর মধ্যে রোববার পর্যন্ত ২৩ হাজার ৭৬২ হজযাত্রী সৌদি আরব গেছেন।

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password