বিশ্ব কাঁপাচ্ছেন হলিউড তারকা গ্যাল গ্যাডট

বিস্ময়ী নারী হয়ে বিশ্ব কাঁপাচ্ছেন হলিউড তারকা গ্যাল গ্যাডট। রূপের পাশাপাশি অ্যাকশনেও ছড়াচ্ছেন আলোর ঝলকানি। আর দেখাবেই বা না কেন! মাত্র ২০ বছর বয়সেই সামরিক বাহিনীতে যোগ দিয়েছেন গ্যাল। সেখানে দুই বছর কাজও করেন। যার প্রমাণ রেখেছেন সম্প্রতি বিশ্বব্যাপী মুক্তি পাওয়া হলিউড ছবি ‘ওয়ান্ডার ওম্যান’-এ।

এক সাক্ষাৎকারে গ্যাল বলেলেছন, ‘ওয়ান্ডার ওম্যান ছবির শুটিং করতে গিয়ে দুই বছর প্রতিরক্ষা বাহিনীতে থাকার চেয়েও বেশি কষ্ট সইতে হয়েছে। শুটিংয়ের জন্য ছয় মাস প্রশিক্ষণ নিয়েছি এবং প্রতিদিন ছয় ঘণ্টা করে। দুই ঘণ্টা ব্যায়াম, দুই ঘণ্টা ফাইটিং কোরিওগ্রাফি এবং দুই ঘণ্টা ঘোড়ায় চড়েছি। যেটা ভীষণ কঠিন ছিল আমার জন্য।’ এ পরিশ্রমের ফল পাচ্ছেন এখন। ছবিটি দেখার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়েছেন দর্শকরা।

১৯৮৫ সালের ৩০ এপ্রিল জন্ম নেয়া গ্যাল গ্যাডট একজন ইসরায়েলি মডেল ও অভিনেত্রী। ইসরাইলের রোস হাইয়ান এলাকায় তার বেড়ে ওঠা। শিক্ষক বাবা আর প্রকৌশলী মায়ের কন্যা তিনি। আইন বিষয়ে উচ্চশিক্ষা নিয়ে মাত্র বিশ বছর বয়স যোগ দেন ইসরাইল প্রতিরক্ষা বাহিনীতে। কিন্তু হলিউডের টানে সে বাহিনীতে বেশিদিন থাকা হয়নি।

তবে এ তারকার পরিচিত কিন্তু ‘দ্য ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস’ চলচ্চিত্র সিরিজের অভিনেত্রী জিসিলি ইয়াসার চরিত্রে কারণেই। এ ছবির পরই ইসরাইলের সর্বাধিক পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত নায়িকা বনে যান তিনি। ২০০৮-এ গ্যাডট ইসরায়েলি আবাসন ব্যবসায়ী ইয়ারোন ভারসানোকে বিয়ে করেন। অভিনয়ের পাশাপাশি তেল আবিবে বিলাসবহুল এক হোটেল ব্যবসার মালিকও কিন্তু তিনি। তবে ইসরায়েলি অভিনেত্রী হওয়ায় অনেকটা বিতর্কিতও গ্যাল।

 

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password