যুক্তরাষ্ট্র বিমান থেকে অস্ত্র ফেলল সিরিয়ায়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটের (আইএস) বিরুদ্ধে যুদ্ধরত ‘বিদ্রোহী’দের জন্য বিমান থেকে হালকা অস্ত্র ফেলে সহায়তা করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে ঠিক কোন ধরনের বিদ্রোহীদের জন্য এই অস্ত্র ফেলা হলো তা গোপন রাখা হয়েছে। সিরিয়াতে রাশিয়ার আইএস বিরোধী অভিযানের প্রায় দুই সপ্তাহ পর যুক্তরাষ্ট্র এই উদ্যোগ নিয়েছে। খবর রয়টার্স, বিবিসির।

মার্কিন সামরিক মুখপাত্র কর্নেল প্যাট্রিক রাইডার এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে প্যাট্রিক রাইডার দাবি করেন, সিরিয়ার ভেতরে আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইরত গোষ্ঠীগুলোর জন্য রোববার বিমান থেকে অস্ত্র ফেলা হয়েছে। এতে ক্ষুদ্র অস্ত্র, গ্রেনেড এবং গোলাবারুদ রয়েছে।

পেন্টাগনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, আইএসের বিরুদ্ধে যুদ্ধরত সিরীয় বিদ্রোহীদের রোববার সি-১৭ বিমান থেকে প্রায় ৫০ টনের মতো হালকা অস্ত্র ও গোলাবারুদ সরবরাহ করা হয়। সিরিয়ার ‘হাসাকা’ প্রদেশে অস্ত্রগুলো ফেলা হয়।

পেন্টাগন জানায়, সি-১৭ বিমানের মাধ্যমে ফেলা অস্ত্রগুলো সফলভাবে সংগ্রহ করেছে সিরিয়ার বিদ্রোহী গোষ্ঠীর সদস্যরা। কিন্তু ঠিক কোন ধরনের বিদ্রোহীদের এই অস্ত্র দেওয়া হয়েছে সে সম্পর্কে তথ্য গোপন রাখা হয়েছে।

এর আগে সিরিয়ার বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোকে প্রশিক্ষণ দেয়ার লক্ষ্যে প্রায় ৫০০ মিলিয়ন ডলারের একটি ব্যয়বহুল প্রকল্পের উদ্যোগ নিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র, কিন্তু পরে তা বাতিল করে মার্কিন কর্তৃপক্ষ।

অন্যদিকে, সিরিয়াতে ইসলামিক স্টেটের অবস্থানের উপর হামলা অব্যাহত রেখেছে রাশিয়ার যুদ্ধবিমান।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০১ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৩, ২০১৫

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password