আদালতের নিষেধাজ্ঞা, এরপরও শপথ গ্রহণ!

আদালতের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নতুন কমিটি শপথ নিয়েছে। আজ শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর বিএফডিসির জহির রায়হান কালার ল্যাবে এই শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। সংগঠনটির নতুন সভাপতি হিসেবে মিশা সওদাগরকে শপথবাক্য পাঠ করান প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালনকারী মনতাজুর রহমান আকবর। এরপর নির্বাচিত অন্য সদস্যদের শপথবাক্য পাঠ করান মিশা সওদাগর।

শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান আদালতের আদেশের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়া হচ্ছে কি না, এমন প্রশ্নে মনতাজুর রহমান আকবর বলেন, ‘আমরা আদেশটি ভালোভাবে বিশ্লেষণ করেছি। সেখানে বিবাদীগণের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর না করার কথা বলা হয়েছে। আমরা ক্ষমতা হস্তান্তর করছি না। আমরা শুধু শপথবাক্য পাঠ করাচ্ছি! ক্ষমতা হস্তান্তর করবে আগের কমিটি। এটা গঠনতন্ত্রেই লেখা আছে।’

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার আদালতের নিষেধাজ্ঞা জারি হয়। ঢাকার দ্বিতীয় সহকারী জজ আদালতের বিচারক তথ্য-উপাত্ত যাচাই করে নির্বাচনের বিষয়ে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ১ থেকে ৪ নম্বর বিবাদীদের ৫ থেকে ২৫ নম্বর বিবাদীদের প্রতি ক্ষমতা হস্তান্তর না করার জন্য অন্তর্বর্তীকালীন অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। ১ থেকে ৪ নম্বর বিবাদীদের মধ্যে আছেন নির্বাচন কমিশনার মনতাজুর রহমান আকবর, এফডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক তপন কুমার ঘোষ, আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন দিলু ও চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি শাকিব খান। আর ৫ থেকে ২৫ নম্বর বিবাদীদের মধ্যে আছেন মিশা সওদাগর, জায়েদ খানসহ এবারের নির্বাচনে বিজয়ী অন্য সদস্যরা।

এদিকে বৃহস্পতিবার রাতে মনতাজুর রহমান আকবর জানিয়েছিলেন, বিজ্ঞ আদালতের প্রতি সম্মান জানিয়ে শুক্রবারের (আজকের) শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান স্থগিত করা হয়েছে। কিন্তু আজ শুক্রবার বিকেলে মত পাল্টান তিনি। সাংবাদিকদের তিনি জানান, শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান হবে।

এবার নির্বাচনের ভোট গণনায় ব্যাপক গরমিল, ভোটের দিন এফডিসিতে বহিরাগত ব্যক্তিদের উপস্থিতি, এরপর আপিল বোর্ডের সদস্যদের কাছে লিখিত অভিযোগ করার পরও কার্যকর কোনো উদ্যোগ না নেওয়ায় বাদী হয়ে আদালতে অভিযোগ করেন রমিজ উদ্দিন নামের একজন চলচ্চিত্র প্রযোজক ও অভিনেতা। বাদীপক্ষের আইনজীবী ছিলেন কাজী মোহাম্মদ নজিবুল্লাহ হিরু ও আমিনুর রহমান।

শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে বাদীপক্ষের আইনজীবী বলেন, ‘ক্ষমতা হস্তান্তর করতে না পারলে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান করার তো কোনো প্রশ্নই আসে না। আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কাজটি করা মানেই আদালত অবমাননা।’

নির্বাচনে ওমর সানি-অমিত হাসান প্যানেল থেকে জয়লাভ করেছেন সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক জাকির হোসেন ও কোষাধ্যক্ষ পদে কমল আর কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য পদে জেসমিন, ফেরদৌস ও মৌসুমী। আজকের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে তাঁরা কেউই ছিলেন না। এদিকে কক্সবাজারে শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকায় ইমন ও সাইমন শপথ অনুষ্ঠানে থাকতে পারেননি। শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান শেষ হলে অনুষ্ঠানস্থলে এসে পৌঁছান কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য চিত্রনায়িকা পপি।

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন চিত্রনায়ক ফারুক, পরিচালক সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন, আপিল বোর্ডের সদস্য খোরশেদ আলম খসরু, শামসুল আলম, নৃত্য পরিচালক সমিতির সভাপতি মাসুম বাবুল, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুর রশীদসহ অনেকে।

গত ৫ মে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password